শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪, ০১:৪৯ অপরাহ্ন

তিন দিন ধরে ফরিদপুর-রাজবাড়ী রুটে বাস চলাচল বন্ধ

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ৪:০৯ am

ফরিদপুর ও রাজবাড়ীর বাস শ্রমিকদের দ্বন্দ্বে দুই রুটে বাস চলাচল গত তিন দিন ধরে বন্ধ রয়েছে। এর ফলে যাত্রীদের দুর্ভোগ বেড়েই চলেছে।

বুধবার (৩০ আগস্ট) সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার (১ সেপ্টেম্বর) এখন পর্যন্ত ফরিদপুর-রাজবাড়ী-গোয়ালন্দ বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

পুলিশ প্রশাসন বলছে, সমস্যা হয়েছে দুই জেলার মালিক ও শ্রমিক সমিতির মধ্যে। তাদেরকে নিজেদের মধ্যে আলোচনা করে সমস্যার সমাধান করে নিতে বলা হয়েছে।

তবে ফরিদপুর বাস মালিকের এক নেতা বলেছেন, এ উদ্যোগ তাদের পক্ষ থেকে কিংবা রাজবাড়ীর পক্ষ থেকে নেওয়ার চাইতে প্রশাসন নিলে সমস্যার দ্রুত সমাধান সম্ভব।

প্রসঙ্গত, ফরিদপুর ও রাজবাড়ী শহর থেকে প্রতিদিন সকাল ৬টায় রাজবাড়ী ও ফরিদপুরের উদ্দেশ্যে বাস ছেড়ে যায়। প্রতি ১০ মিনিট পরপর একটি করে বাস ছাড়ে। রাত ৮টা পর্যন্ত এভাবে বাস চলতে থাকে। অপরদিকে ফরিদপুর থেকে দৌলতদিয়ার বাস আসে আধা ঘণ্টা পর পর।

ফরিদপুর ও রাজবাড়ী পথে প্রতিদিন অন্তত ৮০ বার বাস চলাচল করে। সকাল ৬টা থেকে বাস চলা শুরু হয় এবং রাত ৮টা পর্যন্ত অব্যাহত থাকে। অপরদিকে ফরিদপুর থেকে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া পথে প্রতিদিন ৪০ বার বাস চলাচল করে। গত বুধবার সকাল ৬টা থেকে এই দুইপথে সরাসরি বাস চলাচল বন্ধ থাকায় এ পথে চলাচলকারী যাত্রীদের দুর্ভোগের মুখে পড়তে হয়েছে।

শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, মঙ্গলবার (২৯ আগস্ট) বিকেলে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ মোড় এলাকায় রাজবাড়ী ও ফরিদপুরের বাস শ্রমিকদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে ফরিদপুরের রাজবাড়ীর রাস্তা মোড় থেকে রাজবাড়ীর মালিকদের বাসগুলো আবার রাজবাড়ীর দিকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়। এর পরপরই রাজবাড়ী থেকে ফরিদপুরের মালিকানাধীন বাসগুলো ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

ফরিদপুর বাস মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান বলেন, গত বুধবার রাতে একটি সিদ্ধান্ত হয়েছিল দুই জেলার বাসগুলো নিজ নিজ জেলার সীমান্ত এলাকা পর্যন্ত যাবে। কিন্তু পরে চিন্তা করে দেখা যায় এতে যাত্রী কম হবে, তেল খরচ উঠবে না এবং যাত্রীদের ভোগান্তি হবে। এ বিবেচনা করে বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে।

এদিকে ফরিদপুর থেকে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় রাজবাড়ী ও গোয়লন্দের দৌলতদিয়ার দিক থেকে আসা বাসগুলো ফরিদপুরের সীমানাবর্তী সাইন বোর্ড এলাকা পর্যন্ত আসছে। পরে ওই যাত্রীরা হেঁটে কিছুটা পথ অতিক্রম করে ফরিদপুরের সীমানায় এসে মাহেন্দ্র কিংবা ইজিবাইকে করে ফরিদপুর আসছেন।

ফরিদপুর থেকে রাজবাড়ী যান রাজবাড়ী শহরের বাসিন্দা সরকারি রাজেন্দ্র স্নাতক তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সানজিদা ইসলাম বলেন, ফরিদপুর থেকে মাহেন্দ্রতে করে সাইনবোর্ড পর্যন্ত এসেছি। পরে সেখান থেকে আবার বাসে উঠে রাজবাড়ী পৌঁছেছি। এতে একদিকে ভাড়া তো বেশি লাগছেই পাশাপাশি এক পরিবহন থেকে নেমে আরেকটায় ওঠার ভোগান্তি। বেশিদিন এই অবস্থা চললে এই রুটের যাত্রীদের ভোগান্তির সীমা থাকবে না।

ফরিদপুরের ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক তুহিন লস্কর বলেন, দুই জেলার পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের বসে গত বুধবার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তারা নিজ নিজ জেলার শেষ সীমানা পর্যন্ত বাস চালাবেন। তবে রাজবাড়ী এ সিদ্ধান্ত মেনে ফরিদপুরের সীমান্ত পর্যন্ত বাস চলাচল বৃহস্পতিবার থেকে শুরু করলেও ফরিদপুর থেকে বাস চলাচল বন্ধ রয়েছে।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD