বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪, ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন

জি-২০ সম্মেলনে শি, পুতিনের অনুপস্থিতিকে স্বাভাবিক বলছে ভারত

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ৮:৪৩ am

নয়াদিল্লিতে চলতি সপ্তাহে বিশ্বের শিল্পোন্নত ও বিকাশমান অর্থনীতির দেশগুলোর জি-২০ জোটের সম্মেলনে চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের যোগদান না করাকে স্বাভাবিক হিসেবে দেখছে ভারত। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুব্রাহ্মনিয়াম জয়শঙ্কর বলেছেন, প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং এবং পুতিনের জি-২০ সম্মেলন এড়িয়ে যাওয়া অস্বাভাবিক নয় এবং ভারতের সাথে এর কোনও সম্পর্ক নেই।

বুধবার ভারতের বার্তা সংস্থা এএনআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেছেন জয়শঙ্কর। জি-২০ দেশগুলোর প্রতিনিধিরা জোটের ঐকমত্য তৈরি এবং নয়াদিল্লিতে আগামী ৯-১০ সেপ্টেম্বরের শীর্ষ সম্মেলনে বিশেষ এক ঘোষণায় পৌঁছানোর জন্য আলোচনা করছেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

ভারতের প্রতি ক্ষুব্ধ থাকায় পুতিন এবং শি জিনপিং জি-২০ সম্মেলন এড়িয়ে যাচ্ছেন কি না, সাংবাদিকদের এমন এক প্রশ্নের জবাবে জয়শঙ্কর বলেছেন, না, না। ভারতের সাথে এর কোনও সম্পর্ক আছে বলে আমি মনে করি না।

তিনি বলেন, ‘আমি মনে করি তারা যে সিদ্ধান্তই নেন না কেন, সেই বিষয়ে তারাই সবচেয়ে ভালো জানেন। কিন্তু তাদের এই সিদ্ধান্তকে আপনি যেভাবে দেখছেন, আমি সেভাবে দেখব না।’

তাদের অনুপস্থিতি সম্মেলনের শেষে ঐকমত্য এবং ঘোষণায় কোনও ধরনের প্রভাব ফেলবে কি না, প্রশ্নের জবাবে জয়শঙ্কর বলেন, আমরা এই মুহূর্তে আলোচনা করছি… গতকালও ঘড়ি টিক টিক করতে শুরু করেনি।

তবে জি-২০ সম্মেলন ঘিরে মানুষের প্রত্যাশা অনেক বেশি এবং নয়াদিল্লি মহামারি, সংঘাত, জলবায়ু পরিবর্তন, ঋণ এবং রাজনৈতিক প্রভাবের মাঝে ‘অত্যন্ত কঠিন এক বিশ্বকে’ মোকাবিলায় চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হয়েছে, বলেন তিনি।

বিশ্বের ২০টি প্রধান অর্থনীতির দেশের জোট জি-২০। বিশ্বের চলমান কিছু সংকটের সমাধানের চেষ্টা এবং সমাধানের উপায় খুঁজে বের করাই এই জোটের এবারের সম্মেলনের মূল লক্ষ্য। যদিও এক বছরের বেশি সময় ধরে চলে আসা ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধের প্রভাবে গভীর ভূ-রাজনৈতিক বিভাজন জি-২০ জোটের সেই চেষ্টাকে হুমকির মুখে ফেলতে পারে বলে শঙ্কা রয়েছে।

তবে পুতিন এবং শির অনুপস্থিতির পাশাপাশি যুদ্ধ নিয়ে বিভক্তির কারণে নয়াদিল্লির শীর্ষ সম্মেলনে ঐকমত্য এবং সার্বজনীন ঘোষণায় পৌঁছানো নেতাদের জন্য কঠিন হবে বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্লেষকরা।

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, জি-২০ সম্মেলনে বিশ্বব্যাংকের সংস্কারের ওপর জোর দেবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। একই সঙ্গে অন্যান্য বহুপাক্ষিক উন্নয়ন ব্যাংকগুলোর প্রতি জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবিলায় ঋণদান ও অবকাঠামো প্রকল্পে অর্থায়নের আহ্বান জানাবেন তিনি।

জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা ডিজিটাল বিভিন্ন বৈশ্বিক সংকট ও খাদ্য নিরাপত্তা নিয়ে আলোচনা করবেন বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। আর ভারত বলেছে, ক্রিপ্টো সম্পদ নিয়ন্ত্রণের জন্য একটি বৈশ্বিক কাঠামো দাঁড় করানোর ব্যাপারে আলোচনা চলছে।

সূত্র: রয়টার্স, এএনআই।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD