সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৫:৪৭ অপরাহ্ন

ইমামের আগে রুকু-সিজদা করলে নামাজ হবে?

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ৫:৫১ am

জামাতে নামাজের সময় মুকতাদির জন্য ইমামের অনুসরণ করা জরুরি। নামাজের প্রত্যেক রুকনেই মুকতাদির জন্য ইমামের অনুসরণ করা ওয়াজিব।

ইমামের আগে মুকতাদির রুকু বা সেজদায় চলে যাওয়া কিংবা ইমামের আগেই মুকতাদির রুকু সিজদা থেকে উঠে যাওয়া মাকরুহ তাহরিমি। ভুলে কেউ এমন করলে তার নামাজ হয়ে যাবেবে, তবে জেনেশুনে কেউ এমন করলে তার নামাজ নষ্ট হয়ে যাবে। তাই নামাজের সময় এমন অবহেলা করা যাবে না। এ বিষয়ে সতর্ক থাকা আবশ্যক।

নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, ‘ইমাম নির্ধারণ করা হয়েছে তার অনুসরণ করার জন্য। সুতরাং ইমাম যখন রুকু করবেন তখন তোমরা রুকু করবে, যখন ইমাম রুকু থেকে মাথা ওঠাবেন তখন তোমরাও মাথা ওঠাবে’ (মুসলিম, হাদিস : ৪১২)।

আরেক হাদিসে এসেছে, নবী করিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেন, ‘তোমাদের মাঝে যে ইমামের আগে মাথা উঠিয়ে ফেলে সে কি ভয় করে না যে, আল্লাহ তার মাথাকে গাধার মতো অথবা তার আকৃতিকে গাধার আকৃতি বানিয়ে দেবেন!’ (বুখারি, হাদিস : ৬৯১; রদ্দুল মুহতার : ১/৫৯৫; আলবাহরুর রায়েক : ২/৭৭)।

আবু হুরায়রা (রা.) বর্ণিত আরেক হাদিসে রাসুলুল্লাহ (স.) বলেন, ‘যখন ইমাম সাহেব তাকবির সমাপ্ত করবেন তখন তোমরা তাকবির বলবে। আর যখন তিনি রুকুতে চলে যাবেন তখন তোমরা রুকু শুরু করবে। আর যখন তিনি রুকু থেকে মাথা উঠিয়ে “সামিআল্লাহু লিমান হামিদাহ” বলবেন তখন তোমরা রুকু থেকে মাথা উঠিয়ে “রাববানা ওয়া লাকাল হামদ” বলবে। আর যখন তিনি সেজদায় যাবেন তখন তোমরা সেজদা শুরু করবে।’ (সহিহ বুখারি: ৭২২, ৭৩৪, ৮০৫; সহিহ মুসলিম: ৪১৪)

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD