শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৫৩ পূর্বাহ্ন

সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যে রোজা কবে শুরু, জানা যাবে আজ

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : রবিবার, ১০ মার্চ, ২০২৪ ৬:০৩ am

পবিত্র রমজান মাসের শুরু উপলক্ষ্যে চাঁদ দেখতে মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে সৌদি আরব। একইভাবে দেশের সকল নাগরিককে রোববার (১০ মার্চ) সন্ধ্যায় চাঁদ দেখার আহ্বান জানিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত (ইউএই)।

রোববার শাবান মাসের ২৯ দিন শেষ হবে। সেই হিসেবে আজ সন্ধ্যায় চাঁদ উঠলে পরদিন সোমবার থেকে পবিত্র মাহে রমজান শুরু হবে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম আল আরাবিয়া।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত ১০ মার্চ রমজানের চাঁদ দেখার জন্য মুসলমানদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। মূলত সৌদি সুপ্রিম কোর্ট এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের চাঁদ দেখা কমিটি বাসিন্দাদের অর্ধাকার চাঁদ দেখার জন্য অনুরোধ করেছে। আজ সেই চাঁদ দেখা গেলে তা পবিত্র রমজান মাসের শুরুর বার্তা দেবে।

আল আরাবিয়া বলছে, সৌদি আরবে কেউ চাঁদ দেখলে তাদের তা নিকটতম কেন্দ্রকে অবহিত করতে হবে। এছাড়া সংযুক্ত আরব আমিরাতে যারা চাঁদ দেখবেন তাদের +97126921166 নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

মূলত অর্ধচন্দ্র খালি চোখেই দেখা যায়। আজ সন্ধ্যায় রমজান মাসের চাঁদ দেখা গেলে কাল সোমবার (১১ মার্চ) থেকে মধ্যপ্রাচ্যে রোজা শুরু হবে। সেক্ষেত্রে রোববার রাতেই এশার নামাজের পর তারাবি নামাজ পড়া ও শেষ রাতে প্রথম সেহরিও খাবেন সেখানকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা।

অন্যদিকে চাঁদ দেখা না গেলে সোমবার আরব দেশগুলোতে শাবান মাসের ৩০ দিন পূর্ণ হবে এবং রমজান মাস গণনা শুরু হবে আগামী মঙ্গলবার। সেক্ষেত্রে সোমবার এশার নামাজের পর তারাবি নামাজ পড়া ও শেষরাতে সেহেরি খেতে হবে মধ্যপ্রাচ্যের মুসলমানদের।

মূলত সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে আজ রোববার ২৯ শাবান চলছে। তাই প্রতিবারের মতো স্থানীয় মুসলিমদের আজ সন্ধ্যায় চাঁদ দেখার আহ্বান জানিয়েছে সৌদির সুপ্রিম কোর্ট এবং আরব আমিরাতের চাঁদ দেখা কমিটি।

সাধারণত সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর একদিন পর বাংলাদেশের আকাশে চাঁদ দেখা যায়। ফলে বাংলাদেশে রোজা ও ঈদ পালন হয় মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর পরদিনই।

ইসলামি ক্যালেন্ডারে সাধারণত মাস ২৯ বা ৩০ দিনের হয় এবং মাসের শুরু ও শেষ চাঁদ দেখার ওপর নির্ভর করে। যে কারণে রমজান মাস কোন দিন শুরু হবে তা আগে থেকে নির্দিষ্টভাবে বলা যায় না।

ইসলামের অন্যতম এক স্তম্ভ পবিত্র রমজান মাস। প্রত্যেক বছর অত্যন্ত ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে মুসলিম বিশ্বে পবিত্র এই মাস পালন করা হয়। এক মাস সংযম পালনের পর মুসলমানরা শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করেন।

এদিকে রমজান মাসে সৌদি আরব ও আমিরাতসহ উপসাগরীয় দেশগুলোতে বেশিরভাগ সরকারি এবং অনেক বেসরকারি খাতের কর্মচারীদের কাজের সময় হ্রাস করা হয়েছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বেসরকারি খাতের কর্মীরা রমজান মাসে দুই ঘণ্টা কম কাজ করবে। উপসাগরীয় দেশগুলোর বেশিরভাগ ফেডারেল সংস্থাগুলো সোমবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত কাজ করবে। আর শুক্রবার তারা কাজ করবে সকাল ৯ টা থেকে দুপুর ১২ টা পর্যন্ত।

সৌদি আরবের সরকারি সেক্টর এবং স্কুলগুলোও স্বল্প ঘণ্টার কাজের নিয়ম অনুসরণ করবে বলে আশা করা হচ্ছে। আর রমজান মাস শেষে আগামী ১০ এপ্রিল বা তার কাছাকাছি সময়ে মধ্যপ্রচ্যের দেশগুলোতে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হতে পারে বলেও জানিয়েছে আল আরাবিয়া।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD