বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০৬:১৫ অপরাহ্ন

রাজধানীর গুলিস্তান জিরো পয়েন্টে জবি শিক্ষার্থীদের অবরোধ

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ১০ জুলাই, ২০২৪ ১১:২২ am

সরকারি চাকরিতে কোটা পুনর্বহালের প্রতিবাদে রাজধানীর গুলিস্তান জিরো পয়েন্ট মোড় অবরোধ করেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। ফলে জিরো পয়েন্টকে ঘিরে থাকা সবগুলো সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে গেছে।

বুধবার (১০ জুলাই) বিকেল তিনটার দিকে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) থেকে মিছিল নিয়ে শিক্ষার্থীরা গুলিস্তান জিরো পয়েন্টের দিকে অগ্রসর হয়। পরে জিরো পয়েন্টে এসে অবস্থান নিয়ে বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দিতে থাকে।

এসময় জিরো পয়েন্ট মোড়ে অবস্থিত সচিবালয়ের পার্শ্ববর্তী রাস্তাসহ আশপাশের সবগুলো সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। অবরোধে রাজধানীর সচিবালয়, মতিঝিল, পুরানা পল্টন ও তাঁতিবাজারগামী যাত্রীরা ব্যাপক ভোগান্তিতে পড়ে। অনেককে হেঁটে গুলিস্তানের জিরো পয়েন্ট মোড় পার হতে দেখা যায়। এতে পুরো এলাকা জুড়ে সড়কে স্থবিরতা তৈরি হয়।

এ সময় শিক্ষার্থীদের মুখে ছিল প্রতিবাদী গান ও কবিতা আবৃত্তি। এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘জেগেছে রে জেগেছে, ছাত্র সমাজ জেগেছে’, ‘রক্তের বন্যায়, ভেসে যাবে অন্যায়’, ‘লেগেছে রে লেগেছে, রক্তে আগুন লেগেছে’, ‘কোটা না মেধা? মেধা মেধা’, ‘আঠারোর হাতিয়ার, গর্জে ওঠো আরেক বার’, ‘কোটা প্রথা নিপাত যাক’, ‘মেধাবীরা মুক্তি পাক’, ‘বঙ্গবন্ধুর বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘শেখ হাসিনার বাংলায়, বৈষম্যের ঠাঁই নাই’, ‘মেধাবীরা ভয় নাই, রাজপথ ছাড়ি নাই’ স্লোগান দেয়।

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবস্থাপনা বিভাগের শিক্ষার্থী মাহফুজ হাসান বলেন, এটা আমাদের প্রাণের দাবি, এটা আমাদের মুক্তির দাবি আমাদের দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরা রাজপথ ছাড়বো না। কোটা প্রথার জন্য আমরা সব দিক থেকে বঞ্চিত হচ্ছি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের দাবি হলো বাংলাদেশের সব চাকরিতে কোটা প্রথা বাতিল চাই

গুলিস্তান মোড়ে কাফনের কাপড় পরা তামিম ইসলাম দুর্জয় নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, আমাদের মতো শিক্ষার্থীদের মেধার কোনো মূল্যায়ন নাই। আমরা প্রয়োজনে রক্ত দেব জীবন দেব, কিন্তু আমাদের দাবি না মানা পর্যন্ত রাজপথ ছাড়বো না।

সাকিবুল হাসান নামে আরেক শিক্ষার্থী বলেন, কাফনের কাপড় পরে আমরা আন্দোলন করছি। এটা আমাদের মুক্তির দাবি, নিঃসন্দেহে আমাদের দাবি যৌক্তিক। আমাদের দাবি একটাই কোটা প্রথা নিপাত যাক, মেধাবীরা মুক্তি পাক। প্রধানমন্ত্রী আমাদের এই যৌক্তিক আন্দোলনে সাড়া দিয়ে মেধার মূল্যায়ন করবেন বলে আশা করি।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD