বৃহস্পতিবার, ২৫ জুলাই ২০২৪, ০২:২৭ পূর্বাহ্ন

বিক্ষোভ-গলা ধাক্কা, খাবার সরবরাহ বন্ধের পরও নাইজার ছাড়ছে না ফ্রান্স

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ৬:৪৬ am

নাইজারকে স্বাধীনতা দিলেও ১৯৬০ সালের পর থেকেই দেশটিতে সামরিক ঘাঁটি পেতে বসে আছে ফ্রান্স। বিক্ষোভ-গলা ধাক্কা, খাবার সরবরাহ বন্ধের পরও নাইজার ছাড়ছে না দেশটি।

শনিবারও ফরাসি রাষ্ট্রদূত ও সৈন্য প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন হাজার হাজার মানুষ। জড়ো হয়েছেন নাইজেরিয়ার রাজধানী নিমায়েতে।

ফরাসি সৈন্যদের একটি সামরিক ঘাঁটির কাছে জড়ো হয়ে ‘ফরাসি সেনাবাহিনী, আমাদের দেশ ছেড়ে যাও’ প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ করছেন তারা। রয়টার্স, এপি।

স্থানীয় সময় ৩টার দিকে বিক্ষোভ শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ১০টা থেকেই জড়ো হতে থাকেন বিক্ষোভকারীরা।

নিয়ামি থেকে আলজাজিরার প্রতিবেদক আহমেদ ইদ্রিস জানান, বিক্ষোভকারীরা দেশে এখনো ফরাসি উপস্থিতি থাকার বিষয়ে হতাশা প্রকাশ করে বিষয়গুলো নিজের হাতে নিতে শুরু করেছে। গত কয়েক দিনের বিক্ষোভে কিছুটা শান্ত আর সংগঠিত পরিবেশ থাকলেও শনিবারের বিক্ষোভে নিরাপত্তা বাহিনী, পুলিশ ও সামরিক বাহিনীর স্থাপিত বাধা ভেঙে কাছাকাছি চলে এসেছে। কিছু লোক জোর করে ঘাঁটির কাছে প্রবেশের চেষ্টা করছে।

এক বিক্ষোভকারী ডুবউ-কামবু হামিদু বলেন, ‘আমরা আমাদের দেশ থেকে সব সামরিক ঘাঁটি অপসারণের জন্য লড়াই করতে চাই।’

ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূত সিলভাইন ইত্তেকে এক সপ্তাহেরও বেশি সময় আগে নাইজার ছেড়ে যাওয়ার ৪৮ ঘণ্টা সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছিল। এমনকি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে নিমায়েতে অবস্থিত ফ্রান্স দূতাবাসের পানি, বিদ্যুৎ আর খাদ্য সরবরাহ। ২৭ আগষ্ট সামজিক যোগাযোগ মাধ্যমের একাধিক প্রতিবেদনে এ তথ্য দেওয়া হয়েছিল।

ন্যাশনাল কাউন্সিল ফর দ্য সেফগার্ডিং অব কান্ট্রি (সিএনএসপি)-এর জাতীয় সহায়তা কমিটির সভাপতি, এলহ ইসা হাসুমি বোরেইমা নাইজারে ফরাসি ঘাঁটির সব অংশীদারকে সব পানি, বিদ্যুৎ ও খাদ্যপণ্য স্থগিত করতে বলেছিলেন। ফরাসিদের পণ্য ও পরিষেবা সরবরাহের প্রক্রিয়ায় যারা সাহায্য করবে তারা ‘সার্বভৌম জনগণের শত্র’ বিবেচিত হবে বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। ফ্রান্সের রাষ্ট্রদূতকে দেওয়া দেশত্যাগের জন্য সামরিক প্রশাসনের দেওয়া দুদিনের সময়সীমা শেষ হওয়ার পর এমন ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার এএফপি’র প্যারিসের একটি চিঠিতে দেখা যায়, ফরাসি রাষ্ট্রদূতকে ‘বহিষ্কার’ করতে ‘পুলিশকে নির্দেশনা’ দিয়েছে নাইজারের সামরিক শাসক। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিঠি অনুযায়ী, ফরাসি রাষ্ট্রদূত ও তার পরিবারের সদস্যদের ‘কূটনৈতিক কার্ড ও ভিসা’ বাতিল করেছে নাইজার। শুক্রবার সন্ধ্যায় ক্ষমতাসীন সামরিক বাহিনী ফরাসি কূটনীতিককে দেশ ছাড়তে ৪৮ ঘণ্টা সময় দিয়েছে।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD