সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, ১২:২৯ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশের চাওয়া ফুটবল-হকি, আর্জেন্টিনার ক্রিকেট-কাবাডি

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল, ২০২৪ ১:১১ pm

ভৌগলিকভাবে বাংলাদেশ ও আর্জেন্টিনার দূরত্ব অনেক। তবে ফুটবল দুই দেশের মধ্যে সেতুবন্ধন করেছে। বিশ্বকাপ ফুটবলের সময় বাংলাদেশের ফুটবলপ্রেমীরা আর্জেন্টিনা সমর্থন করে ব্যাপকভাবে। সেই উন্মাদান থেকে বাংলাদেশে আর্জেন্টিনা দূতাবাস স্থাপন করেছে। কূটনৈতিক সম্পর্কের পাশাপাশি ক্রীড়াক্ষেত্রেও সম্পর্ক আরো জোরদার করতে চায় দুই দেশ।

দূতাবাস স্থাপনের পর আর্জেন্টিনার পররাষ্ট্র মন্ত্রী বাংলাদেশ সফরে এসেছিলেন। সেই সময় তিনি বাফুফে ভবনেও গিয়েছিলেন। মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ফুটবল নিয়ে একটি সমঝোতা স্বাক্ষরও হয়েছিল। গত ফেব্রুয়ারিতে হওয়া সেই সমঝোতা চুক্তি এখনো কার্যত রুপ নেয়নি। আজ নতুন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে সেই বিষয়গুলো মূলত আলোকপাত করেছেন আর্জেন্টিনার রাষ্ট্রদূত মার্সেলো সি সেসা।

বিকেলে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাত শেষে ক্রীড়া মন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন বলেন, ‘তারা আমাদের কাছে ক্রিকেটের সহযোগিতা চেয়েছে। আমি তাদের নিশ্চয়তা দিয়েছি কিউরেটর থেকে শুরু করে যা প্রয়োজন আমরা দিতে প্রস্তুত। প্রয়োজনে আমাদের ক্রিকেটাররাও সেখানে গিয়ে খেলবে। ক্রিকেটের পাশাপাশি তারা কাবাডি নিয়েও আগ্রহ প্রকাশ করেছে। বাংলাদেশের জাতীয় খেলায় তারা একবার অংশ নিয়েছিল। আমরা কাবাডিতেও তাদের সহায়তা করতে পারি।’

বাংলাদেশ ক্রিকেট ও কাবাডিতে সহায়তা দেয়ার পাশাপাশি ফুটবল এবং হকিতে আর্জেন্টিনার সাহায্য প্রত্যাশী। বিশেষ করে ফুটবলে জোর দিয়েছেন মন্ত্রী নাজমুল হাসান পাপন, ‘ফুটবলে তারা বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন। অনেক ঐতিহ্য তাদের। আমরা তাদের কাছ থেকে কোচ নিতে পারি আবার আমাদের ছেলে-মেয়েরা ওখানে গিয়ে প্রশিক্ষণ নিতে পারে। হকিতে আমাদের সম্ভাবনা রয়েছে আবার তারাও হকিতে বিশ্ব মানের। হকি নিয়ে তাদেরও আগ্রহ আছে। আমরা তাদের কি দিতে পারি, আবার তাদের কে আমরা কি দিতে পারি। এ রকম একটা ডিটেইলস একে অন্যকে দেব। এরপর মূলত কাজ শুরু হবে।’

আর্জেন্টিনা রাষ্ট্রদূত মারসেলো সি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, ‘সমঝোতা স্বাক্ষরের পর এটিই প্রথম আনুষ্ঠানিক সভা। অনেক বিষয় নিয়ে আলোচনা করেছি। অবশ্যই ফুটবল সেখানে প্রাধান্য পেয়েছে। এছাড়া আমরা ক্রিকেট ও হকিতে এগুতে চাই সেটাও জানিয়েছি।’

এক বছর আগে সমঝোতা স্বাক্ষর হলেও তেমন কার্যকরি পদক্ষেপ না হওয়ার কারণ সম্পর্কে রাষ্ট্রদূত বলেন, ‘আর্জেন্টিনা ও বাংলাদেশ দুই দিকেই নির্বাচন ছিল। আমরা এখন দুই দেশ ক্রীড়ার মাধ্যমে আরো কাছাকাছি আসতে চাই।’

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD