বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৫:২২ অপরাহ্ন

পুলিশের ছররা গুলির অভিযোগ, জামায়াতের ১০ নেতাকর্মী আহত

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : বুধবার, ৮ নভেম্বর, ২০২৩ ৬:১৯ am

তৃতীয় দফা অবরোধ সমর্থনে বগুড়া সদরে বিক্ষোভ মিছিল করেছে জামায়াতের নেতাকর্মীরা। এসময় অবরোধকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ ছররা গুলি চালায়। এতে ১০ জন আহত হয়েছেন বলে দাবি দলটির নেতাদের। তবে পুলিশের দাবি, নিজেদের ছোড়া হাত বোমার বিস্ফোরণে জামায়াত নেতাকর্মীরা আহত হয়েছেন।

বুধবার (৮ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের দ্বিতীয় বাইপাস সাবগ্রাম ও বাঘোপাড়াতে এই ঘটনা ঘটে।

সকালে সদরের ঢাকা-রংপুর দ্বিতীয় বাইপাস মহাসড়কের সাবগ্রামে বগুড়া শহর জামায়াতের আমির অধ্যক্ষ আবিদুর রহমানের নেতৃত্বে দুই শতাধিক নেতাকর্মী লাঠিসোটা হাতে মিছিল শেষে মহাসড়ক অবরোধ করে। পুলিশ তাদের বাধা দিতে গেলে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়৷ একপর্যায়ে পুলিশ জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারশেল ও শটগান থেকে দুই রাউন্ড ছররা গুলি ছুড়ে। এতে ১০ নেতাকর্মী গুলিবিদ্ধ হন৷ পরে তারা কয়েকটি হাত বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে এলাকা ছেড়ে চলে যায়৷

একই সময়ে সদরের ঢাকা-রংপুর মহাসড়কের বাঘোপাড়াতে জামায়াত নেতা আলী আজগরের নেতৃত্বে শতাধিক নেতাকর্মীরা লাঠিসোটা হাতে মিছিল বের করে৷ এই সময় আতঙ্ক ছড়াতে তারা দুইটি হাত বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। পুলিশ টিয়ারশেল ছুড়ে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

অন্যদিকে, বগুড়া জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আজগর তালুকদার হেনার নেতৃত্বে দুই শতাধিক নেতাকর্মীরা সদরের দ্বিতীয় বাইপাস মহাসড়কের লিচুতলা মোড় অবরোধ করে রেখেছেন। সেখানে অবস্থান নিয়ে বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা সরকার বিরোধী নানা স্লোগান দিচ্ছেন। এরকিছু দূরেই পুলিশ সতর্ক অবস্থানে আছে।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদ্য পদোন্নতি প্রাপ্ত পুলিশ সুপার) স্নিগ্ধ আখতার বলেন, জামায়াতের নেতাকর্মীরা সন্ত্রাসী কায়দায় পুলিশকে লক্ষ্য করে হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে টিয়ারশেল ও ছররা গুলি ছুড়ে। সাধারণ মানুষের নিরাপত্তায় কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। পুরো জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD