রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:২৭ পূর্বাহ্ন

পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর আয় বেড়েছে আড়াইগুণ

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২৩ ১:২০ pm

রাজশাহীর ছয়টি আসনের সংসদ-সদস্য প্রার্থীদের আয় ও সম্পদের পরিমাণ গত পাঁচ বছরে বহুগুণ বেড়েছে। প্রায় সবারই ব্যাংকে টাকা জমা রাখার পরিমাণ বৃদ্ধি পেয়েছে। অনেকের জমি ও স্থায়ী সম্পদের পরিমাণ বেড়ে গেছে। এছাড়া প্রার্থীদের পাশাপাশি তাদের স্ত্রীদেরও সম্পদ বেড়েছে।

সম্প্রতি মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দাখিল করা হলফনামা থেকে রাজশাহী নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে এসব তথ্য পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, রাজশাহী-৬ (চারঘাট-বাঘা) আসনের সংসদ সদস্য পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের আয় বেড়েছে আড়াইগুণ। ২০০৮ সাল থেকে রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনের সংসদ সদস্য শাহরিয়ার আলম এবারও দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। ২০১৮ সালে তার বার্ষিক আয় ছিল তিন কোটি চার লাখ ৫৩ হাজার ৩৮৮ টাকা। এখন আড়াইগুণ বেড়ে তা ৭ কোটি ৯২ লাখ ৯১ হাজার ২৫৪ টাকা হয়েছে।

শাহরিয়ার আলমের নগদ টাকাও বেড়েছে। ২০১৮ সালে হাতে নগদ ছিল ছয় কোটি ৭৮ লাখ ৯ হাজার ৭০৬ টাকা। এখন ২১ কোটি ৪৫ লাখ ৪৯ হাজার ১৫৩ টাকা। তার শেয়ারবাজারে ৬৬ কোটি ৪১ লাখ ৩২ হাজার ৭০০ টাকা বিনিয়োগ করেছেন। আগে শেয়ার ছিল ৫৮ কোটি ছয় লাখ ৫৩ হাজার ৩৫০ টাকার। আগে সঞ্চয়পত্র ছিল ১০ লাখ, এবার বেড়ে হয়েছে ৩০ লাখ টাকা।

পাঁচ বছর আগে শাহরিয়ারের গাড়ির দাম ছিল ৭৬ লাখ ৬৩ হাজার ৩১৫ টাকা। এখন লাক্সারি কারের দাম দেখানো হয়েছে ১ কোটি ১০ লাখ তিন হাজার ১০০ টাকা। ২০০৮ সালে তার হাতে নগদ টাকা ছিল এক কোটি ৬৬ লাখ ৪০ হাজার ৫৬৫ টাকা। ব্যাংকে ছিল চার হাজার ১৩৬ টাকা।

২০১৩ সালের নির্বাচনের সময় শাহরিয়ার আলমের ব্যাংক-হিসাবে কোনো টাকা ছিল না। এখন স্ত্রী-সন্তানদের নামেও বিপুল সম্পদ হয়েছে।

কোম্পানির শেয়ার, কৃষি খাত, প্রতিমন্ত্রী হিসাবে পাওয়া সম্মানি ও দোকান এবং অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়াকে আয়ের উৎস হিসাবে দেখিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD