শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন

ইসলামে ভুল স্বীকারের ‍গুরুত্ব

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৯ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ১০:৫৪ am

চলাফেরার পথে মানুষ ইচ্ছায় অনিচ্ছায় বিভিন্ন ভুল করে বসে। মানুষের কাছ থেকে ভুল কিছু ঘটে যাওয়া স্বাভাবিক। তবে ভুলের পর ভুল স্বীকার না করে গোঁড়ামি করা দোষণীয় এবং মন্দ স্বভাবের অংশ।

ভুল কিছু ঘটে যাওয়ার পর ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চাওয়ার প্রতি উৎসাহিত করেছে ইসলাম। ভুল করে ক্ষমা প্রার্থনা করাই একজন মুমিনের বৈশিষ্ট্য। বিখ্যাত সাহাবি হজরত আনাস রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু থেকে বর্ণিত, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, ‘প্রত্যেক আদম সন্তানই গুনাহগার। আর গুনাহগারদের মধ্যে তাওবাকারীরা উত্তম।’ (সুনানে ইবনে মাজাহ, হাদিস, ৪২৫১)

আবু বকর ও ওমর (রা.)-এর ঘটনা

ভুল হয়ে গেলে ক্ষমা চেয়ে নেওয়ার চমৎকার উদাহরণ রেখে গেছেন রাসূলের প্রিয় সাহাবি আবু বকর ও ওমর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহুমা।

আবু দারদা রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, একদিন আবু বকর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু ও ওমর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু -এর মধ্যে বিতর্ক হলো, আবু বকর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু-এর কোনো কথায় ওমর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু রেগে গেলেন। রাগ নিয়েই ওমর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু সেখান থেকে চলে গেলেন। আবু বকর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু তাৎক্ষণিক তার কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করতে করতে তার পিছু নিলেন, কিন্তু ওমর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু ক্ষমা করলেন না, বরং তার সামনের দরজা বন্ধ করে দিলেন।

এরপর আবু বকর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে এলেন। আবু দারদা রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু বলেন, আমরা তখন রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে ছিলাম, ঘটনা শোনার পর রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘তোমাদের এই সঙ্গী আবু বকর আগে কল্যাণ লাভ করেছে।’ তিনি বলেন, এতে ওমর লজ্জিত হলেন এবং সালাম করে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের পাশে বসে পড়েন। সব কথা রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লামের কাছে বর্ণনা করেন।

আবু দারদা রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু বলেন, এতে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম অসন্তুষ্ট হলেন। আর আবু বকর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু বারবার বলছিলেন, ‘হে আল্লাহর রাসুল! আমি বেশি দোষী ছিলাম। ’ পুনরায় রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন, ‘তোমরা আমার খাতিরে আমার সাথির ত্রুটি উপেক্ষা করবে কি? তোমরা আমার খাতিরে আমার সঙ্গীর ত্রুটি উপেক্ষা করবে কি? এমন একদিন ছিল যখন আমি বলেছিলাম, হে লোকসকল! আমি তোমাদের সকলের জন্য রাসূল, তখন তোমরা বলেছিলে, তুমি মিথ্যা বলেছ আর আবু বকর রাদিয়াল্লাহু তায়ালা আনহু বলেছিল, আপনি সত্য বলেছেন।’ (সহিহ বুখারি, হাদিস, ৪৬৪০)

তাই ভুল হলে ক্ষমা প্রার্থনা করা উচিত। এবং যার কাছে ক্ষমা চাওয়া হয়, তার উচিত ক্ষমা করে দেওয়া।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD