বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ০১:২৪ পূর্বাহ্ন

ইতিহাসের সবচেয়ে উষ্ণ সেপ্টেম্বর দেখল ইউরোপ

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : শনিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২৩ ৫:০৭ am

চলতি ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ইউরোপজুড়ে যে গরম অনুভূত হয়েছে, তা এর আগে কখনো দেখা যায়নি বলে জানিয়েছেন মহাদেশটির আবহাওয়াবিদরা। নজিরবিহীন এই তাপবৃদ্ধির জন্য বিদায়ী এই মাসটিকে ইতোমধ্যে ইউরোপের ইতিহাসের সবচেয়ে উষ্ণ সেপ্টেম্বর হিসেবে উল্লেখ করেছেন অনেক আবহাওয়াবিদ।

ফ্রান্সের আবহাওয়া দপ্তর মেটেও-ফ্রান্স জানিয়েছে, ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বরে ফ্রান্সজুড়ে গড় তাপমাত্রা ছিল ২১ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এই মাসে দেশটিতে গড় তাপমাত্রা যা থাকার কথা, তার তুলনায় চলতি সেপ্টেম্বরে ফ্রান্সের তাপমাত্রা ছিল ৩ দশমিক ৫ ডিগ্রি থেকে ৩ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি।

মেটেও-ফ্রান্সের কর্মকর্তারা বলেন, ২০২১ সাল থেকেই ফ্রান্সের গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধির প্রবণতা লক্ষ্য করছেন তারা। তবে চলতি সেপ্টেম্বরে তাপমাত্রা বৃদ্ধির যে হার, তা রীতিমতো উদ্বেগজনক।

ফ্রান্সের প্রতিবেশী দেশ জার্মানিতে গড় তাপমাত্রা বৃদ্ধির হার পরিলক্ষিত হয়েছে সেপ্টেম্বরে। দেশটির আবহাওয়া দপ্তর ডিডব্লিউডির তথ্য অনুযায়ী, ১৯৬১ সাল থেকে ১৯৯০ সাল পর্যন্ত জার্মানিতে সেপ্টেম্বর মাসের গড় তাপমাত্রার যে রেকর্ড, তাল তুলনায় ২০২৩ সালের সেপ্টেম্বরের গড় তাপমাত্রা ছিল প্রায় ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি।

সেপ্টেম্বর মাসে পোল্যান্ডে গড় তাপমাত্রা বেড়েছে ৩ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ইউরোপের মধ্যাঞ্চলীয় এই দেশটির আবহাওয়া দপ্তর জানিয়েছে, গড় তাপমাত্রার এই পরিমাণ উল্লম্ফণ গত ১০০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ।

আল্পস পার্বত্য অঞ্চলের দুই দেশ অস্ট্রিয়া ও সুইজারল্যান্ডও তাদের ইতিহাসের সবচেয়ে উষ্ণ সেপ্টেম্বর পার করেছে চলতি বছর। সুইজারল্যান্ডের আবহাওয়া দপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত ২ বছর ধরেই বাড়ছে দেশটির গড় তাপমাত্রা এবং তার জেরে দেশটির পার্বত্য অঞ্চলের হিমবাহগুলোর ১০ শতাংশ ইতোমধ্যে গলে গেছে।

সেপ্টেম্বরের গরমের আঁচ পেয়েছে স্পেন ও পর্তুগালও। শুক্রবার স্পেনের দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন এলাকার তাপমাত্রা ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত উঠেছিল বলে জানিয়েছে দেশটির আবহাওয়া দপ্তর।

উল্লেখ্য, ইউরোপের দেশগুলোর জোট ইউরোপীয় ইউনিয়নের জলবায়ু পরিবর্তন পর্যবেক্ষণ সংস্থা কোপারনিকাস ক্লাইমেট চেঞ্জ সার্ভিসের কর্মকর্তারা এর আগে ২০২৩ সালকে মানবসভ্যতার উষ্ণতম বছর বলে জানিয়েছিলেন বার্তাসংস্থা এএফপিকে।

তারা আরও বলেছিলেন, প্রকৃতিগত নয়, বরং মানবসৃষ্ট বিভিন্ন কারণে প্রতিদিন বাড়ছে বিশ্বের গড় তাপমাত্রা।

সূত্র : এএফপি

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD