রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১০:৫২ অপরাহ্ন

অর্থনৈতিক উন্নয়নে দক্ষ মানব পুঁজির বিকল্প নেই: ক্লিংজেন

আরব-বাংলা রিপোর্ট:
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২ অক্টোবর, ২০২৩ ১:১৯ pm

বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত করতে দক্ষ মানব পুঁজির বিকল্প নেই বলে জানিয়েছেন বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়ার হিউম্যান ডেভেলমেন্টের পরিচালক নিকোল ক্লিংজেন।

সোমবার (২ অক্টোবর) ঢাকার সাভার ও ধামরাই উপজেলায় পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) পরিচালিত আরএআইএসই প্রকল্পের মাঠপর্যায়ের কার্যক্রম পরিদর্শনের সময় এ কথা বলেন তিনি।

এর আগে, নিকোল ক্লিংজেনের নেতৃত্বে বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিনিধি দল পিকেএসএফ এবং বিশ্বব্যাংকের যৌথ অর্থায়নে পিকেএসএফের সহযোগী সংস্থা সোসাইটি ফর ডেভেলপমেন্ট ইনিশিয়েটিভস্ (এসডিআই) এবং সোশ্যাল আপলিফটমেন্ট সোসাইটির (সাস) মাধ্যমে বাস্তবায়নাধীন ‘রিকভারি অ্যান্ড অ্যাডভান্সমেন্ট অব ইনফরমাল সেক্টর এমপ্লয়মেন্ট (আরএআইএসই)’ প্রকল্পের মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে তার সঙ্গে ছিলেন বিশ্বব্যাংকের আরএআইএসই প্রকল্পের টাস্ক টিম লিডার এস আমের আহমেদ, কো-টাস্ক টিম লিডার আনিকা রহমান এবং পিকেএসএফের মহাব্যবস্থাপক ও আরএআইএসই প্রকল্প সমন্বয়কারী দিলীপ কুমার চক্রবর্ত্তী।

নিকোল ক্লিংজেন বলেন, বিশ্বব্যাংক স্বাস্থ্য, শিক্ষা, চাকরি এবং সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচিতে প্রয়োজনীয় বিনিয়োগ করছে। যেন মানুষ বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে অবদান রাখার সুযোগ পায়। এ লক্ষ্য পূরণে বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কাজ করতে পেরে আমরা অত্যন্ত গর্বিত ও আনন্দিত।

তিনি বলেন, আজকে পিকেএসএফের মাঠ পর্যায়ের কার্যক্রম দেখে আমি অত্যন্ত সন্তুষ্ট। আরএআইএসই প্রকল্পের সহায়তায় তরুণরা দেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নে তাৎপর্যপূর্ণ অবদান রাখার সুযোগ পাচ্ছে।

গত বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে ২৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের আরএআইএনই প্রকল্প বাস্তবায়ন শুরু করে পিকেএসএফ। পাঁচ বছর মেয়াদি এ প্রকল্পের আওতায় ১ লাখ ৭৫ হাজার তরুণ ও ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার সক্ষমতা বৃদ্ধির পাশাপাশি অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থায়ন করা হচ্ছে।

শেয়ার করুন

আরো
© All rights reserved © arabbanglatv

Developer Design Host BD